সল্প খরচের দারুন কয়েকটি ব্যবসা যা আপনি শুরু করতে পারেন

 

করোনা সময়ে বহু মানুষ যারা বাইরে কাজ করতেন তারা বাধ্য হয়ে কাজ ছেড়ে নিজের বাড়ি চলে এসেছেন। এমনও কিছু যন আছেন যারা কাজ হারিয়ে ফেলেছেন। তাই তাদের কাছে এখন সব থেকে বড় চিন্তা হল কিভাবে টাকা উপার্জন করবেন। এমনকি যারা এতদিন চাকরির খোঁজ করছিলেন এই পরিস্থিতিতে চাকরি পাওয়াও খুব মুশকিল হয়ে পড়েছে। এই পরিস্থিতিতে কিছু ব্যবসা আছে যা আপনি খুব কম খরচে শুরু করতে পারেন।

সেনিটাইজিং দোকান এবং পরিসেবা – করোনা আমাদের একটি শিক্ষা দিয়েছে যে নিজেকে এবং নিজের চারিপাশ পরিস্কার ও জীবানুমুক্ত রাখা কতটা জরুরী। তাই সবাই এখন সেই চেষ্টাই করবে। এই পরিস্থিতিতে আপনি সেই পরিসেবা দিতে পারেন। সল্প কিছু খরচে আপনি হ্যান্ড স্যানিটাইজার, হ্যান্ড ওয়াশ, মাস্ক এবং আরও অনেক দ্রব্যের ব্যাবসা শুরু করতে পারেন। সাথে চাইলে আপনি কারো বাড়ি বা কোন জায়গার স্যানিটেশন করে টাকা উপার্জন করতে পারেন।

ফাস্ট ফুডের ব্যাবসা – বর্তমান সময় ও ব্যস্ততার কারনে এই ব্যাবসার জনপ্রিয়তা সব থেকে বেশি। কিন্তু এক্ষেত্রে স্থান এবং পরিষ্কার পরিছন্নতা সবথেকে বেশি গুরুত্বপূর্ণ। যেসব স্থানে মানুষের সমাগম বেশি সেই সব স্থানে এই ব্যাবসার সাফল্যতা বেশি। সাথে আপনাকে পরিস্কার পরিছন্নতা বজায় রাখতে হবে, যাতে মানুষের মনে কোনরকম কিন্তু বোধ না জন্মায়। আপনি চাইলে অনলাইন ডেলিভারি ফেসিলিটি রাখতে পারেন। এতে আপনার ব্যাবসার আরো উন্নতি হতে পারে।

ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট
শাব্দিক অর্থে ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট বলতে বোঝোয় যে কোনো ঘটনার যাবতীয় ব্যবস্থাকে বোঝায়। সময়ের তাগিদে এই ব্যবসা অনেক জনপ্রিয়। এই ব্যবসা করতে আপনি দুটি পদ্ধতির আশ্রয় নিতে পারেন।আপনি কোনো প্রতিষ্ঠানের কাছে কোনো আকর্ষণীয় অনুষ্ঠানের প্রস্তাব নিয়ে গেলেন। তারা আপনার পরিকল্পনা যাচাই করে দায়িত্ব দিলেন। তবে এক্ষেএে আপনাকে একটু সৃজনশীলতার পরিচয় দিতে হবে।

দ্বিতীয়ত আপনার পরিচিত বন্ধু অথবা প্রতিষ্ঠানের কার্য প্রতিবেশী বন্ধু তাদের কাছে দিয়ে রাখলেন পরবর্তীতে তারা আপনাকে অনুরোধ করলো কাজটি করে দেয়ার জন্য।একটু সাহসী, বুদ্ধিমান ও আত্মবিশ্বাসী হলে অনায়াসেই এই ব্যবসা করতে পারবেন।বর্তমানে অনেকেই এটাকে ক্যারিয়ার হিসেবে বেচে নিয়েছে।

ইউটিউব এবং ব্লগস – এই দুটি জিনিস এখন অনেক মানুষের উপার্জনের রাস্তা হয়ে দাড়িয়ে ছে। আপনার মধ্যে যদি কোন বিশেষ গুন থাকে, তাহলে আপনি তা এই প্লাটফর্ম এর সাহায্যে পৃথিবীর কাছে তুলে ধরতে পারেন বা অন্য কাউকে এই বিষয়ে শিক্ষা দিতে পারেন। এতে আপনার যেমন পরিচিতি বাড়বে তেমনই টাকা উপার্জন করতে পারেন। এখানে আপনাকে মুলত টাকা গুগল দিয়ে থাকে। আপনার ভিডিও যখন বেশি মানুষ দেখতে আসবে গুগল তখন আপনার ভিডিওতে বিজ্ঞাপন দেবে। সেখান থেকেই আপনি টাকা পাবেন। তবে আপনাকে অপেক্ষা করতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আমাদের অ্যাপ ব্যবহার করুন
Wordpress Social Share Plugin powered by Ultimatelysocial